সরকারের মন সাদা নয় : রিজভী

19

নিজস্ব প্রতিবেদক :
কোনো পূর্ব শর্ত দিয়ে বিএনপির সঙ্গে আলোচনা হবে না আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের এমন বক্তব্যের জবাবে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবীর রিজভী আহমেদ বলেছেন, ‘তাহলে ওনারা কী নিয়ে আলোচনা করতে চায়?

তিনি বলেন, ‘নির্বাচন নিয়ে বিএনপির সুনির্দিষ্ট দাবি আছে। সেই দাবিগুলো বিবেচনায় নিতে হবে। শূন্য হাতে, শূন্য টেবিলে আলোচনা হয় না। আমরা যে নীতি ও দাবির ওপর আন্দোলন করেছি, নিশ্চয়ই সেটা নিয়ে সেখানে আলোচিত হতে হবে।’

শনিবার দুপুরে নয়াপল্টনে বিএনিপর কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন তিনি।

রিজভী বলেন, ‘সরকারের মন সাদা নয়, অফ হোয়াইট টাইপের। এখানে আমি কোনো স্বচ্ছতা দেখতে পাচ্ছি না।’

তিনি বলেন, ‘আগামী নির্বাচনে ভোটাররা যাতে অবাধে ও নিঃসংশয়ে ভোট দিতে পারেন এটা নিশ্চিত করার জন্য যে আলোচনা হওয়া দরকার, আওয়ামী লীগ নিশ্চয়ই সেই আলোচনায় সাড়া দেবে।’

ক্ষমতাসীনদের উদ্দেশে এই বিএনপি নেতা বলেন, ‘একেবারে স্বচ্ছ মন নিয়ে আলোচনার জন্য আসুন। একটা অবাধ, সুষ্ঠু অংশগ্রহণমূলক এবং শান্তিপূর্ণ নির্বাচন হবে।’

খালেদা জিয়াকে নির্দোষ দাবি করে তিনি বলেন, তাকে আটকে রেখে আপনারা জোর করে নির্বাচন করতে যাবেন, সেটি হবে না।’

তিনি বলেন, ‘নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে আপনাদের নির্বাচন দিতে হবে। পার্লামেন্ট ভেঙে দেয়াসহ নির্বাচন কমিশন পুনর্গঠন করতে হবে। করতে হবে। কারণ প্রধান নির্বাচন কমিশনার তার নিরপেক্ষতা, নির্বাচন নিয়ে সততা খুইয়ে ফেলেছেন, সুতরাং সেটা পুনর্গঠন করতে হবে।’

সরকারের সমালোচনা করে রিজভী আরও বলেন, ‘লোক দেখানো সড়ক পরিবহন খসড়া আইন একটা শূন্য কুম্ভ, অর্থাৎ একটা শূন্য কলসি, প্রতিমুহূর্তে তার আলমত দেখা যাচ্ছে। সড়কের দুর্ঘটনা তো কমেনি। বরং সড়কে প্রতিনিয়ত লাশের জমায়েত দীর্ঘতর হচ্ছে। সড়কে হ-য-ব-র-ল অবস্থা। পরিবহন খাতে আরও বিশৃঙ্খলা বেড়েছে। যার প্রমাণ মন্ত্রীর গাড়িও রেহাই পাইনি। শুক্রবার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর গাড়িতে ধাক্কা দিয়েছে একটি বেপরোয়া বাস। যা চালাচ্ছিল একজন হেলপার। এর পুনরাবৃত্তি হচ্ছে কেন বিবেক জাগেনি এই পরিবহন সেক্টরে? কারণ সরকার তো তাদের পক্ষে, দানবদের পক্ষে, দুর্বৃত্তদের পক্ষে এবং যারা আন্দোলন করছে তাদের দমন করছে। ’

দৃকের প্রতিষ্ঠাতা শহিদুল আলমকে নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর তথ্য উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয় যে বক্তব্য দিয়েছেন তা পুলিশী নির্যাতনকে আরও উৎসাহিত করবে বলেও মন্তব্য করেন বিএনপির এই নেতা।

সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আব্দুস সালাম, যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, সহ-দফতর সম্পাদক মুনির হোসেন, বেলাল আহমেদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

লাইভবার্তা/ জিএম / ১১ আগস্ট, ২০১৮

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY