লেবার পার্টির মহাসচিব গ্রেফতার : নিন্দা

84

লাইভ বার্তা ডেস্কঃ
in২০ দলীয় জোটের শরীক বাংলাদেশ লেবার পার্টির মহাসচিব হামদুল্লাহ আল মেহেদীকে মিথ্যা ও হয়রানিমূলক মামলায় গ্রেফতার করা হয়েছে। গতকাল সকাল ৭টায় রাজধানীর মানিকনগরের বাসা থেকে সাদা পোশাকধারী গোয়েন্দা পুলিশ তাকে নিয়ে যায়। পরিবার ও লেবার পার্টির নেতৃবর্গ বিভিন্ন থানা ও ডিবি কার্যালয়ে দিনভর খোঁজাখুঁজি করে তার সন্ধান পায়নি। পরে বিকেল সাড়ে ৩টায় পুলিশ তাকে কোর্টে হাজির করে ৭ দিন রিমান্ড আবেদন করে। আদালত রিমান্ড নামঞ্জুর করে তাকে কারাগারে প্রেরণ করে। তার বিরুদ্ধে নাশকতার অভিযোগ আনা হয়েছে।

মেহেদীকে গ্রেফতারের ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন বাংলাদেশ লেবার পার্টির চেয়ারম্যান ডা. মোস্তাফিজুর রহমান ইরান, ভাইস চেয়ারম্যান এডভোকেট ফারুক রহমান, যুগ্ম মহাসচিব এডভোকেট উম্মে হাবিবা রহমান, ঢাকা মহানগর সভাপতি শামসুদ্দিন পারভেজ ও সাধারণ সম্পাদক মাহমুদ খান। গতকাল এক যুক্ত বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বলেন, সরকার গণতন্ত্র ও ভোটাধিকার হরণ করে বিরোধী নেতাকর্মী নির্মূল অভিযানে নেমেছে। তারা হামলা, মামলা গ্রেফতার, নির্যাতন, নিপীড়ন করে ক্ষমতায় থাকার ষড়যন্ত্র করছে। নেতৃবৃন্দ সরকারের মিথ্যা ও হয়রানিমূলক পরিকল্পিত সাজানো মামলায় গ্রেফতার লেবার পার্টির মহাসচিব মেহেদীর নিঃশর্ত মুক্তির দাবি জানান।

জোটের এ শীর্ষ নেতার অবিলম্বে মুক্তি দাবি করেছেন বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল-বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

এছাড়া মুক্তির দাবী জানিয়েছেন বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টি চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল (অব.) সৈয়দ মুহম্মদ ইবরাহিম বীর প্রতীক ও মহাসচিব এম. এম. আমিনুর রহমান, বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি-বাংলাদেশ ন্যাপ চেয়ারম্যান জেবেল রহমান গানি ও মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া, ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক পার্টি-এনডিপি চেয়ারম্যান খোন্দকার গোলাম মোর্ত্তজা ও ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব এডভোকেট গাজী রবিউল ইসলাম সাগর, লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টি-এলডিপি সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব শাহাদাত হোসেন সেলিম।

(লাইভবার্তা২৪ডটকম /জিএম/জানুয়ারী ১৭, ফেব্রুয়ারী, ২০১৭)

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY