ট্যাক্স কার্ড পেলেন সুবর্ণা-আফজাল

16

l17

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

সঠিক হারে বেশি পরিমাণে কর দিয়ে সেরা করদাতার সম্মাননা ও ট্যাক্স কার্ড পেয়েছেন অভিনয় শিল্পী সুবর্ণা মোস্তফা ও আফজাল হোসেনসহ ৫ জন। বুধবার জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে তাদের হাতে সম্মাননা পত্র ও ট্যাক্স কার্ড তুলে দেন অভ্যন্তরীন সম্পদ বিভাগের সিনিয়র সচিব ও এনবিআর চেয়ারম্যান মো. নজিবুর রহমান।

এ সময় সম্মাননা ও ট্যাক্স কার্ড পেয়ে ঢাকা-১০ আসনের সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার ফজলে নূর তাপস বলেন, দীর্ঘদিন ধরে কর দিয়ে আসছি। এবার সেরা করদাতার পুরস্কার ট্যাক্সকার্ড পেয়ে সম্মানিত হলাম। সুনাগরিক হিসাবে এনবিআরের স্বীকৃতি পেয়েছি।



তিনি আরো বলেন, কর দেওয়া এখন সহজ বিষয়। এনবিআরের সেরা করদাতাদের ট্যাক্স কার্ড প্রদানের সিদ্ধান্ত যুগোপযোগী হয়েছে। এরফলে কর প্রদানে সাধারণ মানুষ আরো উৎসাহ পাবে।

এই ধরনের অনুষ্ঠান আয়োজনের জন্য এনবিআরের বর্তমান নেতৃত্বকে অভিনন্দন জানিয়ে তাপস বলেন, ‘কর রাজস্ব আহরণ বাড়াতে কর স্তর আরো সহজ করতে হবে। বর্তমানে শূন্য থেকে সরাসরি ১০ শতাংশ স্তরে কর দিতে হয়। সরাসরি ১০ শতাংশে না যেয়ে ৫ শতাংশের একটি কর স্তর রাখা যেতে পারে। তাহলে দেশের উন্নয়নে অংশগ্রহণ করতে আরো অনেকে কর দিতে এগিয়ে আসবেন।’

ব্যারিস্টার রোকন উদ্দিন মাহমুদ সম্মাননা ও ট্যাক্স কার্ড পেয়ে বলেন, ‘সেরা করদাতার সম্মাননা ও ট্যাক্সকার্ড প্রদানের সিদ্ধান্তের মাধ্যমে এনবিআর দূরদর্শিতার পরিচয় দিয়েছে। এরফলে দেশের সাধারণ মানুষ এখন স্ব-প্রণোদিত হয়ে কর দিতে উৎসাহী হবেন। বেশি করে কর দিয়ে সম্মাননা পেতে সবার মাঝে প্রতিযোগিতামূলক দৃষ্টান্ত তৈরি হবে।’

তিনি আরো বলেন, ‘আজকের এ সম্মাননার মধ্য দিয়ে প্রমাণ হলো এদেশে শুধু ব্যবসায়ীরা ট্যাক্স দেয় না। সাধারণ মানুষ ট্যাক্স দেয়। আর এনবিআর সাধারণ মানুষকে ট্যাক্স দিতে প্রতিনিয়ত উৎসাহ দিয়ে যাচ্ছে। যা ভবিষ্যতে দেশের কল্যাণে অত্যন্ত ইতিবাচক ভূমিকা রাখবে।’

ট্যাক্স কার্ড পাওয়া ও সম্মাননাকে জীবনের শ্রেষ্ঠ অভিজ্ঞতা হিসেবে উল্লেখ করে বিশিষ্ট অভিনয় শিল্পী সুবর্ণা মোস্তফা বলেন, বাবা সব সময় সঠিক হারে কর দিতে বলতেন। বাবার কথা অনুসরণ করে আমিও কর দিয়ে যাচ্ছি। এনবিআরের এই সম্মাননা প্রদানের ফলে সামনের দিনগুলোতে কর প্রদানে আমরা সকলে আরো বেশি উৎসাহ পাব।

নাট্য নির্মাতা ও অভিনয় শিল্পী আফজাল হোসেন বলেন, এনবিআরের এই সম্মাননার ফলে সকল শ্রেণী পেশার মানুষের সঙ্গে আমাদের নাম এসেছে। এটি অত্যন্ত আনন্দের। একজন অভিনয়শিল্পী হিসেবে আমি এজন্য গর্ববোধ করছি। পাশাপাশি এনবিআরকে এই ধরনের অনুষ্ঠান আয়োজনের জন্য অভিবাদন জানাচ্ছি।

ট্যাক্স কার্ডপ্রাপ্ত সম্মানিত করদাতাদের অভিনন্দন জানিয়ে সভাপতির বক্তব্যে মোঃ নজিবুর রহমান বলেন, বর্তমানে আমরা নতুন রাজস্ব বোর্ড, সুশাসন ও উন্নততর আধুনিক ব্যবস্থাপনা কাঠামোর আওতায় কাজ করছি। কর বিভাগ সম্পর্কে জনগণের ধারণা আমূল বদলে দিয়েছে আয়কর মেলা, তৈরি হয়েছে করদাতা-বান্ধব পরিবেশ। আয়কর মেলার কারণে করদাতাদের মধ্যে সচেতনতা এবং দায়িত্ববোধ বৃদ্ধি পেয়েছে। অনেকেই এখন স্বেচ্ছায় আয়কর দিতে আসছেন। মেলার পরিবেশ আমরা সারাবছর ধরে রাখতে চাই। রাজস্ব বোর্ড করদাতাদের উন্নততর করসেবা প্রদানে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। সেজন্য প্রথমবারের মতো আয়কর সপ্তাহ, ট্যাক্স কার্ডের সংখ্যা কয়েকগুণ বৃদ্ধি করা হয়েছে। করদাতাদের সাথে সম্পর্ক আরো সুদৃঢ় করতে বিভিন্ন উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, সর্বোচ্চ করদাতা ব্যক্তি-প্রতিষ্ঠানকে উৎসাহ প্রদানে এ বছর ট্যাক্স কার্ড নীতিমালা সংশোধন করে পূর্বের ২০টি ট্যাক্স কার্ডের স্থলে ১৪১ ব্যক্তি-প্রতিষ্ঠানকে ট্যাক্স কার্ড প্রদান করা হচ্ছে। আরও বেশি উৎসাহ প্রদানের জন্য ভবিষ্যতে এ সংখ্যা আরো বাড়াতে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড কাজ করছে।

জ/ ১৭

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY