গণআন্দোলনে খালেদা জিয়াকে মুক্ত করা হবে : আমান

31

নিজস্ব প্রতিবেদক :
রাজনৈতিক প্রতিহিংসার শিকার ও শেখ হাসিনার আক্রোশে বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া কারাগারে রয়েছেন এমন দাবি করে বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ও ডাকসুর সাবেক ভিপি আমান উল্লাহ আমান বলেছেন, ‘তাকে (খালেদা) অবৈধভাবে মিথ্যা মামলায় মিথ্যা সাজা দেয়া হয়েছে। অবিলম্বে বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্তি দেয়া হোক আর যদি মুক্তি না দেয়া হয় তাহলে বৃহত্তর গণআন্দোলনের মাধ্যমে তাকে মুক্ত করা হবে।’

বৃহস্পতিবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে তারেক জিয়া সাইবার ফোর্সের উদ্যোগে বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার চিকিৎসা, অবৈধ সাজা বাতিল এবং বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে এক মানববন্ধনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

আমান বলেন, ‘আমাদের নেত্রী আন্দোলন করে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করেছিলেন সেই নেত্রীকে আজ যা ইচ্ছা তাই বলা হচ্ছে। বেগম খালেদা জিয়ার আপোষহীন নেতৃত্বের কারণেই স্বৈরতন্ত্রের পতন হয়ে গণতন্ত্র মুক্ত হয়েছিল। আজ সেই গণতন্ত্র বন্দি, গণতন্ত্রের নেত্রী আজ বন্দী।

বিএনপির এই নেতা হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেন, ‘অবৈধ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যদি বেগম খালেদা জিয়াকে ছাড়া নির্বাচনের স্বপ্ন দেখেন সেই নির্বাচন বাংলাদেশে আর হবে না, হতে দেয়া হবে না। বাংলাদেশে নির্বাচন হতে হলে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে হবে, নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন দিতে হবে, সংসদ ভেঙে দিতে হবে। তারপরে বাংলাদেশ নির্বাচন হবে, সেই নির্বাচনে বাংলাদেশের জনগণ তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবে, জনগণ তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগের মধ্য দিয়ে দেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠিত হবে এবং বেগম খালেদা জিয়া আবার রাষ্ট্রপ্রধান হবে।’

এসময় তিনি বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নামে সকল মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানান।

আয়োজক সংগঠনের সভাপতি ফাতেমা খানমের সভাপতিত্বে এবং দেশ বাঁচাও মানুষ বাঁচাও আন্দোলনের সভাপতি কে এম রকিবুল ইসলাম রিপনের সঞ্চালনায় মানববন্ধনে আরও বক্তব্য দেন বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য নাজিম উদ্দীন আলম, রফিক শিকদার, ডিএল সাধারণ সম্পাদক সাইফুদ্দিন আহমেদ মনি, জাগপার সাধারণ সম্পাদক খন্দকার লুৎফর রহমান, সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক পলাশ মন্ডল, সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বদরুল আলম রানা, সাংগঠনিক সম্পাদক শান্ত ইসলাম জুম্মন প্রমুখ।

লাইভবার্তা/ জিএম / ১২ জুলাই, ২০১৮

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY