কালো টাকার কাছে মুখ থুবরে পড়েছে রাজনীতি : মঈন খান

22

নরসিংদী প্রতিবেদক :
বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আবদুল মঈন খান বলেছেন, ‘নির্বাচন কারো দয়ার বিষয় নয়। সরকার দয়া করে আমাদের নির্বাচন দেবে। আর সেই নির্বাচনে আমরা গৃহপালিত বিরোধীদল হতে নির্বাচনে অংশ নেব, তা আমরা হতে দেব না।’

শনিবার নরসিংদীর পলাশ উপজেলার পারুলিয়া গ্রামে মা খোরশেদা বেগমের সপ্তম স্মরণসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে মঈন খান এসব কথা বলেন।

ড. আবদুল মঈন খান বলেন, ‘রাজনীতি আর করা যাবে না। কালো টাকা আর পেশি শক্তির কাছে মুখ থুবরে পড়েছে বর্তমান রাজনীতি। আমি তো কালো টাকা আর পেশি শক্তির রাজনীতি শিখি নাই। মানুষের পকেটে টাকা গুজে আমি এমপি হতে চাই না। ভোট কিনে ভুয়া প্রতিনিধি হয়ে সংসদে গেলে এর চেয়ে অসম্মানের আর কিছু নেই।’

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য বলেন, ‘সংসদে ১৫৪ জন সদস্য বিনা ভোটে নির্বাচিত। বাকি ১৪৬ জন সদস্য পাঁচ শতাংশ ভোটারের ভোটও পায়নি। মিডিয়ার কল্যাণে আমরা দেখেছি, ৫ জানুয়ারির নির্বাচনে কেন্দ্রে কোনো ভোটার ছিল না।’

এ সময় মঈন খান আরো বলেন, ‘কয়েকদিন আগে সরকারের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, বাংলাদেশ নাকি কাতারের চেয়েও উন্নত হয়ে গেছে। তারা অর্থনীতির প্রবৃদ্ধি যে হারে দেখাচ্ছেন, তাতে মনে হচ্ছে কয়েক বছরের মধ্যে আমরা আমেরিকা যুক্তরাজ্যকে পেছনে ফেলে এক নাম্বার রাষ্ট্রে পরিণত হব। এসব ধোকাবাজি দিয়ে দেশের উন্নয়ন করা যায় না। উন্নয়নের নাম করে লুটপাট করা হচ্ছে। একশত কোটি টাকার প্রকল্পকে এক হাজার কোটি টাকার প্রকল্প দেখিয়ে লুটপাট করা হচ্ছে।’

পলাশ উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি এম এ বাছেদের সভাপতিত্বে এই স্মরণসভায় বক্তব্য দেন কেন্দ্রীয় বিএনপির সদস্য ফেরদৌস আহাম্মেদ খোকন, বিএনপি নেতা বাবুল সরকার, থানা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এরফান আলী, জেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক হাসানুজ্জামান হাসান প্রমুখ।

লাইভবার্তা/জিএম/৩০ জুন, ২০১৮

 

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY